আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে বিদায় নিলেন ধোনি

নিউজ ডেস্ক আপডেট:১৫ আগস্ট, ২০২০ আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে বিদায় নিলেন ধোনি

মহেন্দ্র সিং ধোনির অবসর নিয়ে কত জল্পনা-কল্পনা হয়েছে এত দিন। সব জল্পনা-কল্পনার ইতি ধোনি নিজেই টানলেন আজ। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে জানিয়ে দিলেন, শেষ হয়েছে তাঁর আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারের বর্ণাঢ্য অধ্যায়টা।

ধোনি সর্বশেষ খেলেছেন গত বিশ্বকাপে। বিশ্বকাপের পর থেকেই একেবারে নিশ্চুপ ছিলেন ভারতের সবচেয়ে সফল অধিনায়ক। তাঁর অবসর নিয়ে অনেক কথা হলেও এ নিয়ে ধোনির পক্ষ থেকে কোনো কথাই শোনা যায়নি এত দিন। ৩৯ বছর বয়সী ভারতীয় উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান অবশেষে মুখ খুলেছেন। আর সেটিই যেন একটা ঢেউয়ের মতো লেগেছে ভারতীয় ক্রিকেটে। আজ সন্ধ্যায় তিনি ইনস্টাগ্রামে লিখেছেন, ‘পুরো ক্যারিয়ারজুড়ে আমাকে ভালোবাসা ও সমর্থনের জন্য সবাইকে অনেক ধন্যবাদ । ৭টা ২৯ মিনিট (আজ) থেকে আমাকে অবসরপ্রাপ্ত ক্রিকেটার হিসেবে ধরে নেন।’

বিদায়বার্তার সঙ্গে একটি ভিডিও পোস্ট করেছেন ধোনি। ভিডিও বার্তায় ফুটে উঠেছে ১৫ বছরের পুরো ক্যারিয়ারটাই। যেটি বর্ণিল হয়ে আছে কত সাফল্যের গল্পে। আছে একমাত্র অধিনায়ক হিসেবে আইসিসির তিনটি টুর্নামেন্ট জেতার অনন্য রেকর্ডও। ধোনি টেস্ট থেকে অবসর নিয়েছিলেন আকস্মিকভাবে। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটও ছাড়লেন আচমকা, অনাড়ম্বরে। ধোনির ক্যারিয়ারটাই তো এমন চমকে ভরা! তাঁর এসব চমক আর দেখা যাবে না ভারতের নীল জার্সিতে।

অবসরের ঘোষণা দিলে আসন্ন আইপিএল খেলবেন কি না, সেটি অবশ্য পরিষ্কার করেননি ধোনি।

২০১৪ সালের ডিসেম্বরেই টেস্ট ক্রিকেটকে বিদায় বলে দিয়েছিলেন তিনি। এরপর রঙ্গিন পোশাকের ক্রিকেট চালিয়ে যাচ্ছিলেন। খেলেছেন ২০১৫ এবং ২০১৯ বিশ্বকাপও। ২০১৬ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর, ২০১৭ সালের শুরুতেই সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটের ক্রিকেটের নেতৃত্ব থেকে সরে দাঁড়ান তিনি।

অধিনায়ক হিসেবে ধোনির যা অর্জন, তা শুধু ভারত কেন বিশ্বের আর কোনো অধিনায়কই অর্জন করতে পারেননি। তিনিই একমাত্র অধিনায়ক, যিনি আইসিসির প্রতিটি শিরোপা জয় করেছেন। ২০০৭ প্রথম টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জয়, এরপর ২০১১ ওয়ানডে বিশ্বকাপ জয় এবং ২০১৩ সালে জিতেছে আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি। এছাড়া ধোনির নেতৃত্বেই প্রথমবারের মত আইসিসি টেস্ট র‌্যাংকিংয়ে শীর্ষে উঠে আসে ভারত।

নেতৃত্ব ছাড়লেও একজন ক্রিকেটার হিসেবে খেলা চালিয়ে যাচ্ছিলেন ভারতের সবচেয়ে সফল অধিনায়ক। ২০১৯ বিশ্বকাপও খেলেছেন তিনি। সর্বশেষ নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে খেলেছিলেন সেমিফাইনালে। ওই ম্যাচে হারের পর আর মাঠে নামা হয়নি ধোনির। সাময়িকভাবে দুলে থাকার সিদ্ধান্ত নেন তিনি। যোগ দেন তাকে দেয়া সেনাবাহিনীর সম্মানজন লেফটেন্যান্ট কর্ণেল পোস্টে। দুই মাস জম্মু এবং কাশ্মীর অভিযানে অংশ নেন ধোনি।

Source: www.prothomalo.com

করোনা ভাইরাস - লাইভ আপডেট

# দেশ আক্রান্ত মৃত সুস্থ