দেশে করোনায় শেষ ৫০০ মৃত্যু মাত্র ১৩ দিনে!

নিউজ ডেস্ক আপডেট:০৫ জুলাই, ২০২০ দেশে করোনায় শেষ ৫০০ মৃত্যু মাত্র ১৩ দিনে!

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর বলছে, আজ রোববার পর্যন্ত দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ২ হাজার ৫২ জন। দেশে করোনায় প্রথম মৃত্যু হয় ১৮ মার্চ। আর আজ রোববার মারা গেছেন ৫৫ জন। আর একদিনে সর্বোচ্চ ৬৪ জন মারা গেছেন গত ৩০ জুন।

দেশে করোনা সংক্রমণের পর প্রথম ৫০০ মৃত্যু পার হতে লেগেছিল ৭৯দিন। এরপর ১৬ দিনে দ্বিতীয় ৫০০, ১২ দিনে তৃতীয় ৫০০ ও ১৩ দিনে চতুর্থ ৫০০ মানুষের মৃত্যু হলো করোনায়।

করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ ৬২ হাজার ৪১৭ জন। প্রতিদিন গড়ে সাড়ে তিন হাজার নতুন শনাক্ত রোগী যুক্ত হচ্ছে। এত মানুষের যথাযথ চিকিৎসা দিতে না পারায় মৃত্যু বাড়ছে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। তবে সরকারের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, অনেক দেশের তুলনায় দেশে মৃত্যুহার এখনো কম।দেশে শনাক্তের তুলনায় মৃত্যুহার ১ দশমিক ২৬ শতাংশ।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য বলছে, মার্চে সব মিলে করোনায় মারা যান ৫ জন। এপ্রিলে মৃত্যু বেড়ে দাঁড়ায় ১৬৩ জনে। এরপর মে মাসে মারা যান ৪৮২ জন। আর জুনে মারা গেছেন ১ হাজার ১৯৭ জন।

করোনাভাইরাস নিয়ে নিয়মিত তথ্য প্রদানকারী অনলাইন পোর্টাল ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্য বলছে, বিশ্বে একদিনে সাড়ে ৮ হাজার মৃত্যুর ঘটনাও ঘটেছে। তবে এটি কমে এখন সাড়ে তিন থেকে চার হাজারে নেমে এসেছে। অধিকাংশ দেশেই মৃত্যুর সংখ্যা কমে আসছে।

করোনা শনাক্তের সংখ্যায় বিশ্বে ১৮তম অবস্থানে এখন বাংলাদেশ। আর মোট মৃত্যুর দিক থেকে বাংলাদেশে অবস্থান ২৭ নম্বরে। তবে দিনে নতুন মৃত্যুর হিসেবে ২১ নম্বরে বাংলাদেশ। শনাক্ত রোগী বেড়ে যাওয়া, চিকিৎসায় অব্যবস্থাপনা, রোগীর জন্য হাসপাতালে শয্যার অপ্রতুলতা, অক্সিজেন ঘাটতি এবং বয়স্ক ও অন্য রোগে আক্রান্তদের মধ্যে করোনা ছড়িয়ে পড়ায় দেশে মৃত্যু বাড়ছে বলে ধারণা করছেন সংশ্লিষ্টরা।

Source: www.prothomalo.com

করোনা ভাইরাস - লাইভ আপডেট

# দেশ আক্রান্ত মৃত সুস্থ