নড়াইলের লোহাগড়ায় দু্ই পক্ষের সংঘর্ষে ৩ জন নিহত

নিউজ ডেস্ক আপডেট:১০ জুন, ২০২০ নড়াইলের লোহাগড়ায় দু্ই পক্ষের সংঘর্ষে ৩ জন নিহত

নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার কাশিপুর ইউনিয়নের গন্ডব গ্রামে এলাকায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দু্ই পক্ষের সংঘর্ষে ৩ জন নিহত ও ১৬ জন আহত হয়েছে। বুধবার দুপুরে পৃথক দুই দফা সংঘর্ষে এ হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- চাচা গন্ডব গ্রামের মৃত মাজেদ মোল্যার ছেলে মোক্তার মোল্যা (৫৮), তার ভাতিজা একই গ্রামের মোন্তাজ মোল্যার ছেলে আমিনুর রহমান হাবিল মোল্যা (৫০) এবং সাইফার মোল্যার ছেলে রফিকুল মোল্যা (৩৪)।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, গন্ডব গ্রামে দীর্ঘদিন ধরে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে মিরাজ মোল্যা ও শরিফুল মোল্যা সমর্থিত লোকজনদের সঙ্গে একই গ্রামের জেলা পরিষদের সদস্য সুলতান মাহমুদ বিপ্লব ও ছলেমান মেম্বার সমর্থিত লোকজনদের বিরোধ চলে আসছিল। বুধবার দুপুরে প্রথম দফা হামলায় বেশ কয়েকজন আহত হন। দুপুর দুইটার দিকে দ্বিতীয় দফা সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

দেশীয় অস্ত্রশস্ত্রাদি নিয়ে আধাঘন্টাব্যাপী সংঘর্ষ চলাকালে বিপ্লব গ্রুপের সমর্থকদের হামলায় মিরাজ মোল্যার পক্ষের মোক্তার মোল্যা, হাবিল মোল্যা, রফিক মোল্যা, মিজান মোল্যা, জুয়েল, ইনতাজ, সাইফুল, খবির মোল্যা, ইকরাম মোল্যা, নজরুল মোল্যা, ও সাগর মোল্যা গুরুতর আহত হন। এসময় বিপ্লব গ্রুপেরও কয়েকজন আহত হন।

আহতদের নড়াইল সদর হাসপাতালে আনা হলে মিরাজ মোল্যা গ্রুপের মোক্তার মোল্যা (৫০) ও হাবিল মোল্যাকে (৪৫) মৃত ঘোষণা করা হয়।

এছাড়া আশংকাজনক অবস্থায় রফিক মোল্যাকে (৪০) খুলনা মেডিকেল কলেজ হাপসাতালে নেওয়ার পথে ফুলতলা এলাকায় পৌঁছালে তার মৃত্যু হয়।  আহত অন্যান্যরা নড়াইল সদর হাসপাতালসহ বিভিন্ন স্থানে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

নিহত রফিকের ভাই শরিফুল ইসলাম অভিযোগ করেন, পুলিশের উপস্থিতেই সুলতানুজ্জামান বিপ্লবের লোকজন এ হামলা চালিয়েছে।

নিহতের বিষয়টি নিশ্চিত করে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন পিপিএম বলেন, এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

Source: www.jugantor.com

করোনা ভাইরাস - লাইভ আপডেট

# দেশ আক্রান্ত মৃত সুস্থ