ঘূর্ণিঝড় আম্ফান: আশ্রয়কেন্দ্রে ২৪ লাখ মানুষ

নিউজ ডেস্ক আপডেট:২০ মে, ২০২০ ঘূর্ণিঝড় আম্ফান: আশ্রয়কেন্দ্রে ২৪ লাখ মানুষ

ঘূর্ণিঝড় ‘আম্ফান’ বাংলাদেশের উপকূলের দিকে ধেয়ে আসায় ২৩ লাখ ৯০ হাজার ৩০৭ জন মানুষকে ১৪ হাজার ৬৩৬টি আশ্রয়কেন্দ্রে সরিয়ে নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী এনামুর রহমান।

বুধবার (২০ মে) দুপুরে ঘূর্ণিঝড় ‘আম্ফান’ মোকাবেলায় সরকারের সবশেষে প্রস্তুতি নিয়ে ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে প্রতিমন্ত্রী এইসব তথ্য জানান।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, লোকসংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় আশ্রয় কেন্দ্রের সংখ্যা ১২ হাজার ৭৮টি থেকে বাড়িয়ে ১৪ হাজার ৬৩৬টি করা হয়েছে। যারা আশ্রয়কেন্দ্রে এসেছেন তাদের মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজার সরবরাহ করা হয়েছে। জরুরি ওষুধসহ চিকিৎসক দল প্রস্তুত আছে।সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত না করলে ১৪ হাজার ৩৩৬টি আশ্রয়কেন্দ্রে ৫৭ লাখ ১৩ হাজার ৬০৭ জন মানুষকে রাখা সম্ভব হতো বলে জানান প্রতিমন্ত্রী।

৫ লাখ ১৭ হাজার ৪৩২টি গবাদিপশুকে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেয়া হয়েছে বলেও জানান দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘একটি লোককেও যেন ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থানে ছেড়ে না আসা হয় আমরা সেই নির্দেশ দিয়েছি।’

তিনি বলেন, ‘লোকসংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় আশ্রয়কেন্দ্রের সংখ্যা ১২ হাজার ৭৮টি থেকে বাড়িয়ে ১৪ হাজার ৩৩৬টি করা হয়েছে। এসব আশ্রয় কেন্দ্রে ২৩ লাখ ৯০ হাজার ৩০৭ জনকে নেয়া হয়েছে, এটাই সর্বোচ্চ সংখ্যক।’

১৪ হাজার ৩৩৬টি আশ্রয়কেন্দ্রে ৫৭ লাখ ১৩ হাজার ৬০৭ জন মানুষকে রাখা সম্ভব। সামাজিক দূরত্ব মানার কারণে এতে কম মানুষকে নেয়া হয়েছে বলে জানান ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী।

প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন “ আমরা আশা করছি আম্পান থেকে রক্ষায় সর্বোচ্চ সফলতা পাব।”

Source: www.jagonews24.com

করোনা ভাইরাস - লাইভ আপডেট

# দেশ আক্রান্ত মৃত সুস্থ