করোনার থাবায় দুর্দিনে বিড়ি শ্রমিকরা

নিউজ ডেস্ক আপডেট:১৬ মে, ২০২০ করোনার থাবায় দুর্দিনে বিড়ি শ্রমিকরা

না পাচ্ছে কোন সরকারী সহযোগিতা না পাচ্ছে কোন কাজ। একবেলা খাবার জুটে তো অন্য বেলা না খেয়ে দিনাতিপাত করতে হচ্ছে। পেটের ক্ষুধা নিয়ে যখন নির্ঘুম রাত কাটে তখন দিনের শুরুতেই শুরু হয় আবার দুশ্চিন্তা। কোথায় মিলবে কাজ! দুমুঠো খাবার জোগাতে এভাবে হিমশিম খেতে হচ্ছে বিড়ি শ্রমিকদের।

শুক্রবার বাগেরহাট মোল্লারহাটের উপজেলা পরিষদের সামনে অনুষ্ঠিত এক মানববন্ধনে এমন অসহায়ত্বের চিত্র তুলে ধরেছেন বিড়ি শ্রমিকরা। 

মানববন্ধনে বক্তব্য প্রদান করেন বাগেরহাট জেলা বিড়ি শ্রমিক ফেডারেশনের সাধারন সম্পাদক মোঃ আতিয়ার রহমান, ফেডারেশনের সদস্য মোঃ আলি হোসেন, জিপুলি বেগম, শিউলি বেগম প্রমুখ। মানববন্ধনে দুই শতাধিক বিড়ি শ্রমিক নেতা-কর্মী উপস্থিত ছিলেন।

মাববন্ধনে বক্তারা বলেন, সমাজের ২০ লক্ষাধিক অসহায়, সুবিধাবঞ্চিত, বিধবা ও পঙ্গু বিড়ি তৈরি করে জীবিকা নির্বাহ করে। করোনাভাইরাসের কারণে আমাদের কর্ম বন্ধ হওয়ায় জীবিকা নির্বাহ করতে চরম হিমশিম খাচ্ছি। না পাচ্ছি কোন সরকারী সহযোগিতা না পাচ্ছি কোন কাজ।

এমতাবস্থায় চরম দুর্দিনে দিন পার করছি আমরা। এরমধ্যেই আমাদের কর্ম বন্ধের ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে। তাহলে আমরা কি করে খাব?

এসময় তারা দাবি করেন, বিকল্প কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা না করে কোনভাবে বিড়ি বন্ধ করা যাবে না। বিড়ির ওপর বিদ্যমান কর কমিয়ে বিড়ি শিল্পকে কুটির শিল্পের মর্যাদা দিতে হবে। বহুজাতিক তামাকজাত কোম্পানির উপর অতিরিক্ত কর ধার্য করতে হবে।

Source: www.eisomoy24.com

করোনা ভাইরাস - লাইভ আপডেট

# দেশ আক্রান্ত মৃত সুস্থ