৫০ লাখ পরিবারকে দিতে ১২৫৭ কোটি টাকা ছাড়

নিউজ ডেস্ক আপডেট:১১ মে, ২০২০ ৫০ লাখ পরিবারকে দিতে ১২৫৭ কোটি টাকা ছাড়

করোনাভাইরাসের কারণে সারাদেশের ক্ষতিগ্রস্ত ৫০ লাখ দরিদ্র পরিবারকে এককালীন আড়াই হাজার টাকা করে দেয়ার জন্য এক হাজার ২৫৭ কোটি টাকা ছাড় করেছে অর্থ মন্ত্রণালয়।

আজ সোমবার (১১ মে) অর্থ মন্ত্রণালয়ের অর্থ বিভাগের দুই শাখা থেকে এ অর্থ ছাড় করা হয়েছে। আগামী ১৪ মে এ টাকা দেয়ার কার্যক্রম প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্বোধন করার কথা রয়েছে। বিতরণ শুরু হওয়ার পর চলবে ঈদুল ফিতরের আগ পর্যন্ত। অর্থ মন্ত্রণালয় সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

উদ্বোধনের দিন থেকে পরের ৪ দিন ১০ লাখ করে মোট ৪০ লাখ পরিবারকে দেওয়া হবে এ অর্থ। বাকি ১০ লাখ পরিবারও এর মধ্যেই পাবে।

অর্থ মন্ত্রণালয়ের অর্থ বিভাগের বাজেট-১ শাখা থেকে ৬২৭ কোটি এবং বাজেট-৩ শাখা থেকে ৬৩০ কোটি টাকা। এসব টাকা সুবিধাভোগীদের মোবাইল ব্যাংক হিসাবে পাঠাতে সেবা মাশুল বাবদ ছাড় করা হয়েছে আরও সাত কোটি টাকা।

সবাইকে টাকা দেওয়া হবে মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসের (এমএফএস) মাধ্যমে। এর মধ্যে ১৭ লাখ পরিবারকে দেওয়া হবে ডাক বিভাগের সেবা নগদের মাধ্যমে। ১৫ লাখ পরিবারকে দেবে বিকাশ। ১০ লাখ পরিবারকে দেবে রকেট এবং ৮ লাখ পরিবারকে দেবে শিউরক্যাশ।

প্রতি হাজারে টাকা পাঠানোর সেবা মাশুল যা-ই থাকুক না কেন, এসব এমএফএসকে সরকার দেবে প্রতি হাজারে মাত্র ৬ টাকা। অর্থাৎ একটি পরিবারের কাছে আড়াই হাজার টাকা পৌঁছাতে সরকারকে বাড়তি ১৫ টাকা করে খরচ করতে হচ্ছে। এমএফএসগুলো ছাড় না দিলে টাকা পৌঁছানোর এ খরচ বেড়ে তিন গুণ হতো।

যোগাযোগ করলে নগদের ব্যবস্থাপনা পরিচালক তানভীর আহমেদ বলেন, ‘নগদের লেনদেনের খরচ হাজারে ১৪ টাকা ৫০ পয়সা। আমরা পাব ৬ টাকা। বাকি ৮ টাকা ৫০ পয়সা ভর্তুকি দিতে হবে আমাদের। কিন্তু নগদ সরকারের সব উদ্যোগের পাশে থাকবে। সরকার নির্দেশ দিলে পুরোটাই ভর্তুকি দিতে আমরা প্রস্তুত।’

Source: www.prothomalo.com