করোনায় মৃতের সংখ্যা ৯৫ হাজার ছাড়াল, মোট আক্রান্ত ১৬ লাখ

করোনায় মৃতের সংখ্যা ৯৫ হাজার ছাড়াল, মোট আক্রান্ত ১৬ লাখ

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাসে প্রাণহানির সংখ্যা ৯৫ হাজার ছাড়িয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের জনস হপকিন্স ইউনিভার্সিটির তথ্য অনুযায়ী, শুক্রবার সকাল সাড়ে নয়টা পর্যন্ত এই সংখ্যা ৯৫ হাজার ৭১৮ জন। এই সময় পর্যন্ত শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ১৬ লাখের বেশি। এর মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ৩ লাখ ৫৪ হাজার ৯৭২ জন।

প্রাণহানিতে শীর্ষে ইউরোপের কয়েকটি দেশ। এর মধ্যে গতকাল শুক্রবার রাত পর্যন্ত ১৭ হাজার ৬৬৯ জন নিয়ে প্রাণহানিতে শীর্ষে রয়েছে ইতালি। এ ছাড়া স্পেনে ১৫ হাজার ২৩৮, ফ্রান্সে ১০ হাজার ৯৭, যুক্তরাজ্যে ৭ হাজার ৯৭ জনের প্রাণহানি ঘটেছে। যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা ১৫ হাজার ছাড়িয়েছে। গত ডিসেম্বরে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহরে ছড়িয়ে পড়ে এই ভাইরাস। দেশটি এখন করোনার সংক্রমণ অনেকটা নিয়ন্ত্রণে এনেছে। তবে আমেরিকা ও ইউরোপে এটা ভয়াবহভাবে ছড়িয়ে পড়েছে।

জনস হপকিন্স ইউনিভার্সিটির তথ্যমতে, শনাক্ত রোগীর সংখ্যা এখন সবচেয়ে বেশি যুক্তরাষ্ট্রে—৪ লাখ ৩২ হাজার ৫৯৬। এরপর আছে স্পেন—১ লাখ ৫২ হাজার ৪৪৬। এরপর পর্যায়ক্রমে রয়েছে ইতালি (১ লাখ ৩৯ হাজার ৪২২), জার্মানি (১ লাখ ১৩ হাজার ২৯৬) ও ফ্রান্স (৮৩ হাজার ৮০)।

তথ্য অনুযায়ী, যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাস সংক্রমিত কোভিড-১৯ রোগে আক্রান্ত ৪ লাখ ৬৫ হাজার ২৪০ জনকে শনাক্ত করা হয়েছে। প্রতিদিন এই সংখ্যা আশঙ্কাজনক হারে বাড়েছে।

ফ্রান্সে এরই মধ্যে মৃতের সংখ্যা ১২ হাজার ছাড়িয়ে গেছে। অপরদিকে আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় এক লাখ ২০ হাজার। ইউরোপের এই দেশটি এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যায় বিশ্বের চতুর্থ অবস্থানে রয়েছে।

ফ্রান্সে এখন পর্যন্ত এক লাখ ১৭ হাজার ৭৪৯ জন প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে এবং মারা গেছে ১২ হাজার ২১০ জন। অপরদিকে এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়ে উঠেছে ২৩ হাজার ২০৬ জন।

তবে করোনায় আক্রান্ত ৭ হাজার ৬৬ জনের অবস্থা এখনও আশঙ্কাজনক। ফ্রান্সে বুধবার নতুন করে ১৩৪১ জন মারা গেছেন। নতুন আক্রান্ত ৪ হাজার ৭৯৯ জন।

যুক্তরাজ্যে করোনার প্রকোপ প্রতিদিনই বাড়ছে। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে মৃত্যুর মিছিলে সামিল হয়েছেন আরও অন্তত ৮৮১ জন। এ নিয়ে সেখানে মোট মৃতের সংখ্যা প্রায় আট হাজার ছুঁয়েছে। সব মিলিয়ে সেখানে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৭ হাজার ৯৮৪ জন।

যুক্তরাজ্যে এপর্যন্ত করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৬৫ হাজার জনেরও বেশি। এদের মধ্যে সুস্থ হয়ে হাসপাতাল ছেড়েছেন অন্তত ৩৫১ জন।

একদিন আগেই স্পেনে ৭৪৭ জনের প্রাণ কেড়ে নেয় করোনাভাইরাস। তবে বৃহস্পতিবারের হিসাব অনুযায়ী, ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে মারা গেছে ৬৫৫ জন। এ নিয়ে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িছে ১৫ হাজার ৪৪৭ জন।

জার্মানিতে আগের দিনের মৃতের সংখ্যা ছিল ৩৩৩ জন। তবে আজকের হিসাব অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছে ১৮০ জন। এ নিয়ে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িছে ২ হাজার ৫২৯ জন।

এদিকে আগের দিনের তুলনায় ইতালিতে মৃতের সংখ্যা বেড়েছে। একদিন আগে দেশটিতে ৫৪২ জনের মৃত্যু হলেও গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছে আরও ৬১০ জন। এ নিয়ে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িছে ১৮ হাজার ২৭৯ জন।

গত বছরের ৩১ ডিসেম্বর চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহুরে প্রথম করোনাভাইরাসের উপস্থিতি ধরা পড়ে। এরপর থেকেই তা সারাবিশ্বে ছড়িয়ে পড়েছে। বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্র এবং ইউরোপের দেশগুলোতে সবচেয়ে বেশি তাণ্ডব চালাচ্ছে করোনাভাইরাস।

Source: