করোনাভাইরাসে মৃত্যু ৮৮ হাজার ছাড়ালো

নিউজ ডেস্ক আপডেট:০৯ এপ্রিল, ২০২০ করোনাভাইরাসে মৃত্যু ৮৮ হাজার ছাড়ালো

বিশ্বব্যাপী ২০৯টি দেশ ও অঞ্চলে নভেল করোনাভাইরাসের (কভিড-১৯) প্রকোপ ছড়িয়ে পড়েছে। প্রাণঘাতী করোনায় মৃত্যু হয়েছে ৮৮ হাজার ৫১৬ জনের। মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১৫ লাখ ১৮ হাজার ৯২৭। তবে এখন পর্যন্ত চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৩ লাখ ৩০ হাজার ৬৯৭ জন। করোনায় এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি আক্রান্তের সংখ্যা যুক্তরাষ্ট্রে এবং সবচেয়ে বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে ইতালিতে।

ওয়ার্ল্ডোমিটার তথ্য অনুযায়ী, যুক্তরাষ্ট্রে বেড়েই চলেছে করোনাভাইরাসের মৃত্যুর সংখ্যা। যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছে ৩১ হাজার ৯৩৫ জন। ফলে দেশটিতে এখন পর্যন্ত মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৪ লাখ ৩৫ হাজার ১২৮। অপরদিকে দেশটিতে নতুন করে ১ হাজার ৯৪০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এখনো পর্যন্ত দেশটিতে মোট মৃতের সংখ্যা ১৪ হাজার ৭৮৮। দেশটিতে ২২ হাজার ৮৯১ জন ইতোমধ্যেই চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছে। তবে ৯ হাজার ২৭৯ জনের অবস্থা এখনও আশঙ্কাজনক।

মৃত্যুর দিক দিয়ে সবার ওপরে রয়েছে ইতালি। দেশটি যেন মৃত্যুপুরীতে পরিণত হয়েছে। দেশটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় ৫৪২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া দেশটিতে গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছে ৩৮৩৬ জন। মোট আক্রান্ত হয়েছেন এক লাখ ৩৯ হাজার ৪২২ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ১৭ হাজার ৬৬৯ জনের। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছে ২৬ হাজার ৪৯১ জন।

আক্রান্তের দিক দিয়ে ইতালিকে পার করে দ্বিতীয় অবস্থানে উঠে এসেছে স্পেন। দেশটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় ৭৪৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছে ৬২৭৮ জন। সেখানে এখনো পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ ৪৮ হাজার ২২০ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ১৪ হাজার ৭৯২ জনের। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৪৮ হাজার ২১ জন।

এছাড়া গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে যুক্তরাজ্যে ৯৩৮, ফ্রান্সে ৫৪১। সবমিলিয়ে এদিকে ফ্রান্সে মারা গেছে ১০ হাজার ৮৮৯ জন। যুক্তরাজ্যে প্রাণহানি ঘটেছে ৭ হাজার ৯৭ জনের।

গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে জার্মানিতে ৩৩৩, বেলজিয়ামে ২০৫ ও নেদারল্যান্ডসে ১৪৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। করোনায় প্রথম মৃত্যু হয়েছে মাল্টা ও সোমালিয়ায়। যার মধ্যে একদিনে ৬ হাজারেরও বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে। আক্রান্ত ১৫ লাখ ছাড়িয়েছে।

কানাডায় সবমিলিয়ে মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৪২৭ জন। স্বেচ্ছায় আইসোলেশন থেকে কাজে ফিরেছেন কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো।

মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোর মধ্যে করোনায় সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ইরান। দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৬৪ হাজার ৫৮৬ এবং মারা গেছে ৩ হাজার ৯৯৩ জন।

চীনের মূল ভূখণ্ডে আক্রান্ত হয়েছেন ৮১ হাজার ৮৬৫ জন। আর মারা গেছেন ৩ হাজার ৩৩৫ জন। সোমবার প্রথমবারের মতো করোনায় মৃত্যুহীন ছিল চীন। মঙ্গলবার এবং বুধবার আবার দুই জন করে মৃত্যু হয়েছে। তবে নতুন করে ৬৩ জন শনাক্ত হয়েছেন তারা সবাই বিদেশি। চীনের মূল ভূখণ্ডে অনেকদিন থেকে করোনায় নতুন করে কেউ আক্রান্ত হননি। যে উহান থেকে এই ভাইরাসের উৎপত্তি হয়েছে সেখানের নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়া হয়েছে বুধবার। জীবনযাত্রা স্বাভাবিক হতে শুরু করেছে।

বাংলাদেশে এখনো ২১৮ জনের শরীরে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি শনাক্ত হয়েছে। এরমধ্যে মারা গেছেন ২০ জন।

Source: independent24