জীবন বদলে দেয়া কিছু টিপস!

নিউজ ডেস্ক আপডেট:৩০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ জীবন বদলে দেয়া কিছু টিপস!

ভাল কথা, ভাল উপদেশ কখনো পুরনো হয় না। একটি ইতিবাচক জিনিসের আবেদন রয়ে যায় চিরকাল। ঘরের দেয়ালে একটি উক্তি টাঙানো, আপনি হয়তো দিনের পর দিন সেটি দেখে আসছো কোনদিন কিছু মনে হয়নি, হঠাৎ একদিন কোন বিশেষ পরিবেশ পরিস্থিতির কারণে বাণীটি একদম তোমার হৃদয়ে গেঁথে গেল। অবাক হয়ে ভাবলে, তাই তো! এতদিন কেন চোখে পড়েনি ব্যাপারটা?

এতদিন চোখে পড়েছে ঠিকই, কিন্তু হৃদয়ে প্রবেশ করেনি। আজ সেটা করলো। কিছু টিপস আপনার জীবন বদলে দিতে পারে চিরদিনের জন্য। জীবনের মোড় বদলে দেয়া এমন ২৫ টি টিপস নিয়েই আজকের এই আয়োজন।

১. ঘুম থেকে উঠে নামাজ ও স্রষ্টার প্রতি আপনার আজকের প্রার্থনা করে নিন। তারপর এক গ্লাস ঠান্ডা পানি পান করুন এবং প্রকৃতির নির্মল পরিবেশে ২০ মিনিট একটু দ্রুত হাঁটুন এবং বেশি বেশি দীর্ঘায়িত নিঃশ্বাস নিন।

২. সারা দিনের করণীয় কাজগুলো সম্পর্কে মনস্থির করুন। কোনটার পর কোনটা কতক্ষণ করবেন। সময় নির্ধারণ করে নিন।

৩. স্রষ্টাকে প্রতিক্ষণ, প্রতিটি কাজে, প্রতিটি ক্ষেত্রে স্মরণ রাখুন। প্রতিটি ক্ষেত্রে কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করুন। আপনার প্রতিটি কাজে এবং প্রতিটি ক্ষেত্রে পজিটিব ফোকাস করুন। নিজেকে সব সময়ই মোটিভেশন দিন – পারবই, হবই, হবেই। আমার ব্রেন’ত সফলশীলদের মতই। তবে শুধু ব্রেনের চর্চা করতে হবে। একটু বুদ্ধি খাটাতে হবে। তাহলেই হল। আজকে থেকেই, এখন থেকেই শুরু করলাম।

৪. নির্ভরযোগ্য প্রাকৃতিক উপাদানে ঘরে তৈরি খাবার বেশি খাবেন আর প্রক্রিয়াজাত খাবার কম খাবেন এবং সবুজ চা দিনে দুই-এক কাপ এবং পর্যাপ্ত পানি পান করুন ।

৫. সবার সাথে হাসি মুখে কথা বলুন এবং মনস্থির করুন আজ কোন ধরনের রাগ করব না। আর মনে রাখুন- রেগে গেলেই হেরে যাব।

৬. অতীতে হেরে গেছেন! তা নয়, একটুও হারেন নি।এর থেকে অনেক কিছুই শিখেছেন।স্বীকার করুন, হ্যা আমি শিখেছি। এই অভিজ্ঞতাই আপনার শিক্ষক। অতীতের সকল বাজে চিন্তা ঝেড়ে ফেলে দিন।আর মনে রাখুন বাজে চিন্তার জন্যই কোন সুবুদ্ধি, পরিকল্পনা মাথা রাখতে পারছেন না।

৭. স্বপ্ন দেখুন তবে বড় স্বপ্ন, ছোট নয় এবং আপনার স্বপ্ন অনুযায়ী চলমান কাজ করতে থাকুন।একটুও সময় নষ্ট করা যাবে না।

৮. চিন্তা করুন সিংহের মত বিড়ালের মত নয় । মেও মেও করা বন্ধ করুন।বাঁচতে হলে সিংহের মতই বাঁচতে হবে। আর নয় এখন থেকেই শুরু —–।জেগে উঠুন আপন শক্তিতে।

৯. যা করার সিদ্ধান্ত নিবেন তা নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত করার চেষ্টা করুন। সফল হবেনই।

১০. অন্যকে ঘৃনা করা নয় বরং তার প্রতি পজিটিভ মনোভাব ফোকাস করুন।

১১. চিন্তা নয় সমাধান চাই।তাই চিন্তা করুন সহজ করে, কঠিন করে নয়।

১২. সকল ক্ষেত্রে জিততে হবে এমন নয়, প্রয়োজনে হারোন।

১৩. অতীতের হেরে যাওয়া চিন্তা বাদ দিয়ে নতুন করে শুরু করুন।মনে রাখুন শেষ ভাল যার সব ভাল তার।

১৪. অন্যের জীবনের সাথে নিজের জীবন তুলনা না করুন।নিজের ক্ষমতার গতিতে চলুন।

১৫. সুখ, ভালোবাসা, আদর এগুলি ভুলে যান।সুখের জন্য সম্রাট শাজাহানের মত হলে চলবে না।

১৬. কোন বিনিময়ের আশা না করে পরিবার পরিজনদেরকে সাহায্য করুন।

১৭. কেউ আপনাকে সম্মান করল কিনা তা না দেখে সবাইকে সম্মান করুন। অপরকে প্রথমে ছালাম দেয়া অভ্যাস করুন।

১৮. মনে কোন কষ্ট, রাগ, জেদ পুষে না রেখে মিঠিয়ে ফেলুন, প্রয়োজনে পরাজিত হউন।

১৯. শুধু অপরের জন্য নয়, নিজের জন্য নিদিষ্ট সময় রাখুন। নিজেকে তৈরি করুন অপরদেরকে সাহায্য করার জন্য।

২০. নেগেটিভ লোকদেরকে এড়িয়ে চলুন, পজিটিভ লোকদের সাথে মিশুন।ভুলেও বোকা এবং অনভিজ্ঞদের কাছ থেকে পরামর্শ নিবেন না।

২১. মিথ্যুক গল্পবাজদেরকে এড়িয়ে চলুন (অর্থাৎ যারা মিথ্যা বলে)।

২২. যে আপনাকে বুঝতে চায় না তাকে বুঝানো থেকে বিরত থাকুন।

২৩. বুদ্ধি নেন তবে অভিজ্ঞদের কাছ থেকে তবে অনভিজ্ঞদের কাছ থেকে নয়। (মনে রাখুন, সকল শিক্ষিত সকল কাজে অভিজ্ঞ নয়)

২৪. দীর্ঘ সময়ের খেলা, কাল্পনিক বা মিথ্যা ঘঠনা নিয়ে গঠিত নাটক, ছবি ইত্যাদি দেখা থেকে বিরত থাকুন। সময় সম্পর্কে সচেতন থাকুন।

২৫. ছবিতে বা বাস্তবে যে কোন প্রকার ঝগড়ার, মারামারির, বেয়দবির, নেশা বা ড্রাগ নিচ্ছে, জিনা করছে এমন দৃশ্য দেখা থেকে বিরত থাকুন। যা আপনার মনে দীর্ঘ স্থায়ী বিরাজ করে এবং আপনার ব্রেন আপনাকে করতে বাধ্য করে।

Source: www.eisomoy24.com