ভারতের বিপক্ষে খেলতে পারবেন না মাহমুদউল্লাহ!

নিউজ ডেস্ক আপডেট:০১ জুলাই, ২০১৯ ভারতের বিপক্ষে খেলতে পারবেন না মাহমুদউল্লাহ!

ভারতের সাথে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের মাঠে ফেরার বিষয়ে দলের ম্যানেজার খালেদ মাহমুদ সুজন সেই প্রথম থেকেই সংশয়ে। বারবার মাহমুদউল্লাহর আন্তরিকতা ও মাঠে ফেরার তাড়নার প্রশংসা করে বলেছেন, ‘রিয়াদ অনেক বেশি আত্মবিশ্বাসী। ইনজুুরি কাটিয়ে ভারতের বিপক্ষে মাঠে ফিরতে মরিয়া। তবে আমার মনে হয় ২ জুলাইয়ের ঐ ম্যাচে তার সম্ভাবনা ফিফটি ফিফটি।’

রোববার সকালেও খালেদ মাহমুদ সুজনের মুখে শোনা গেছে প্রায় একই কথা। এর পাশাপাশি সুজন জানিয়েছেন, মাহমুদউল্লাহ ৫ জুলাই পাকিস্তানের সাথে ঠিক মাঠে নামতে পারবেন। কিন্তু ২ জুলাই ভারতের সাথে খেলবেনই- এমন নিশ্চয়তা দেননি।

এদিকে বিকেলে প্র্যাকটিস থেকে হোটেলে ফেরার পর সন্ধ্যায় জাগো নিউজের সাথে আলাপে প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নুও ম্যানেজার সুজনের সুরেই কথা বললেন। প্রধান নির্বাচকের কন্ঠেও হতাশা।

রোববার বার্মিংহ্যাম সময় সন্ধ্যা আটটার দিকে জাগো নিউজের সাথে আলাপে নান্নু বলেন, ‘এখনই ঠিক বলা যাচ্ছে না। আজ একটু নক করেছে। নেটে হালকা ব্যাটিংও ঝালিয়ে নিয়েছে। কিন্তু আমার মনে হয় না ২ জুলাইয়ের ম্যাচ তার পক্ষে খেলা সম্ভব হবে।’

তবে এটাই প্রধান নির্বাচকের শেষ কথা নয়। তার শেষ কথা হলো, ১ জুলাই এজবাস্টনে প্র্যাকটিসে মাহমুদউল্লাহকে শেষ বারের মত খুঁটিয়ে দেখা হবে। তখনই কেবল বোঝা যাবে, জানাও হবে- মিডল অর্ডার এই ব্যাটসম্যান ২ জুলাই খেলতে পারবেন কি পারবেন না।

প্র্যাকটিসে গিয়ে শুধু হালকা নক আর নেটে একটু আধটু ব্যাট করতে পারলেই তো আর চলবে না। ম্যাচ খেলতে হলে তাকে একটা সময় ব্যাট করতে হবে। রানিং বিটুইন দ্য উইকেটে দৌড়াতে হবে। আর ৫০ ওভার ফিল্ডিং করতে হবে। একই সময়ে থ্রোয়িংও করতে হবে প্রচুর।

তাই ভারতের সাথে খেলতে হলে তাকে সোমবারের মধ্যেই শতভাগ ম্যাচ ফিটনেস ফিরে পেতে হবে মাহমুদউল্লাহকে। তবেই খেলা সম্ভব হবে। নান্নু বলেন, ‘আমার মনে হয় না, সে এই অল্প সময়ের মধ্যে খেলার মত ফিট হয়ে যাবে।’

সেই ২৪ জুন আফগানিস্তানের সাথে ম্যাচে রান নিতে গিয়ে কাফ মাসলের ইনজুুরিতে পড়ে আর ফিল্ডিংয়ে নামতে পারেননি। খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে হাঁটলেও তখন থেকেই মাঠে ফিরতে মরিয়া মাহমুদউল্লাহ।

ম্যানেজার খালেদ মাহমুদ সুজন আর প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু বারবার জানিয়েছেন, মাঠে ফিরতে মাহমুদউল্লাহর উৎসাহ-আগ্রহর কমতি নেই একটুও। তিনি প্রাণপন চেষ্টা করে যাচ্ছেন।

ভারতের সাথে অস্তিত্বের লড়াইয়ে মাঠে থেকে সর্বশক্তি দিয়ে পারফরম করতে উদগ্রীব মাহমুদউল্লাহ। আর সে কারণেই সতীর্থদের সাথে নিজের উৎসাহে আজ (রোববার) প্র্যাকটিসে গিয়েছেন।

একটু পা টেনে টেনে হাঁটলেও নিজেই হোটেল রুম থেকে বেরিয়ে বাসে গিয়ে উঠেন মাহমুদউল্লাহ। প্রধান নির্বাচক আর বিসিবি মিডিয়া ম্যানেজার রাবিদ ইমাম জানালেন, এজবাস্টনের প্র্যাকটিস গ্রাউন্ডে গিয়ে প্রথমে নক করেছেন রিয়াদ। তারপর খানিক সময় নেটে ব্যাটও করেছেন।

মাহমুদউল্লাহকে এই হালকা ব্যাটিং প্র্যাকটিস করতে দেখে মনে হচ্ছিল, খবর ভালো। কিন্তু অবস্থাদৃষ্টে মনে হচ্ছে তার পক্ষে ২ জুলাই ভারতের বিপক্ষে ম্যাচে মাঠে নামা কঠিন হবে।

Source: www.jagonews24.com