শুটিংয়ের আগেই বুকিং শুরু হয়ে গেছে শাকিবের বীর সিনেমা

শুটিংয়ের আগেই বুকিং শুরু হয়ে গেছে শাকিবের বীর সিনেমা

সম্প্রতি দেশের চারটি সিনেমা হলে আগ্রিম বুকিং পেয়েছে কাজী হায়াৎ পরিচালিত ‘বীর’ ছবিটি। সিরাজগঞ্জের চালা, চট্টগ্রামের সিলভার স্ক্রিন সিনেপ্লেক্স, শেরপুরের সত্যবতী ও সিলেটের বিজিবি সিনেমা হল থেকে এই অগ্রিম বুকিং দেওয়া হয়। ছয় লাখ টাকা করে মোট ২৪ লাখ টাকার বুকিং পেয়েছেন বলে জানিয়েছেন ছবির নির্বাহী প্রযোজক মোহাম্মদ ইকবাল। ‘বীর’ ছবিতে অভিনয় করছেন শাকিব খান।

‘বীর’ ছবিটির আগাম বুকিং নিয়ে যেমন আনন্দিত ছবির সংশ্লিষ্টরা, তেমনি একটি আতঙ্কও কাজ করছে বলে জানান তারা। প্রযোজক ইকবাল বলেন, ‘আমরা ছবিটি নিয়ে অনেক আশাবাদী। এরই মধ্যে কাকরাইলের সিনেমাপাড়ায় ‘বীর’ চলচ্চিত্রটি নিয়ে গুঞ্জন শুরু হয়েছে। দেশের চারটি সিনেমা হলে অগ্রিম বুকিং পাওয়াতেই এই আলোচনা হচ্ছে। বিগত ১০ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ বুকিং মানি পেয়েছি। একেকটা সিনেমা হলে ছয় লাখ টাকা করে বুকিং দিয়েছে।’

বিষয়টি নিয়ে পরিচালক কাজী হায়াৎ বলেন, ‘বিষয়টি অবশ্যই আনন্দের, তবে আমি আনন্দের পাশাপাশি আতঙ্কিত। কারণ আমার ছবিতে প্রথমবারের মাতো শাকিব খান অভিনয় করছেন। আমাদের দুজনের প্রতি সিনেমা হল মালিকরা যেমন আগ্রহ দেখাচ্ছেন আমি সেই আশা পূরণ করতে পারব তো? এতে আমার দায়িত্ব আরো বেড়ে গেল। ছবির শুটিং এখনো এক মাস দেরি আছে। আমি ছবির গল্পের বিষয়টি আরো গুরুত্ব দিয়ে দেখব।’

বুকিং এজেন্ট সাইফুল ইসলাম বলেন, ‘আসলে শাকিব খান অভিনয়ে অপ্রতিদ্বন্দ্বী। তার সাথে রয়েছেন পরিচালক কাজী হায়াৎ। আমরা একটু বেশি আশা করতেই পারি। যে কারণে এই আগাম বুকিং। আর অগ্রিম বুকিং বাংলাদেশের ইতিহাসে প্রথম নয়। একটা সময় ছিল যখন ভালো ছবি নির্মাণ শুরু হলে সিনেমা হল মালিকরা অগ্রিম টাকায় ছবিটি বুকিং করতেন। তবে এত বছর পর এমন আগ্রহ চলচ্চিত্রের জন্য মঙ্গলজনক বলে আমি মনে করি।’

‘বীর’ শিরোনামের ছবিটি মোহাম্মদ ইকবালের সঙ্গে যৌথভাবে প্রযোজনা করবেন শাকিব খান। ছবিতে নায়িকা হিসেবে কাজ করছেন মৌমিতা মৌ। এ ছাড়া আরেকজন নায়িকা থাকবেন, তবে তার নাম জানাননি প্রযোজক মোহাম্মদ ইকবাল।

Source: